রাজনীতি

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সমর্থন করি না: ওবায়দুল কাদের

বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সরকার সমর্থন করে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রাজনীতি ডেস্ক: বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সরকার সমর্থন করে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান তিনি।

বরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অগ্রগতিবিষয়ক শুনানিতে গতকাল বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট বলেন, ‘আমরা বিচারবহির্ভূত হত্যা পছন্দ করি না। এতে পাবলিকের কাছে ভুল তথ্য যেতে পারে।’

হাইকোর্টের মন্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদেরের কাছে জানতে চান সাংবাদিকেরা। তিনি বলেন, ‘বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হয়েছে— সরকার বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ কথা তো দাবি করে না। এখানে এনকাউন্টারের কথা বলা হচ্ছে। এনকাউন্টার ও ক্রসফায়ার তো এক না। এখানে যা হয়েছে, তাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিজেই বক্তব্য দিয়েছেন। বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিষয়টির কোনো যোগসূত্র স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য থেকে কেউ পায়নি।’

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কেরানীগঞ্জ কারাগারে এখনো না নিয়ে বিএসএমএমইউতে রাখা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, অসুস্থতার কারণে তিনি হাসপাতালে। এটা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও কারা কর্তৃপক্ষ জানবে।

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এর পেছনে যৌক্তিক কিছু বিষয় কারণ ছিল। আমি এবিষয়ে কথা বলেছি। যার কারণে গ্যাসের দামের সমন্বয় করা হয়েছে। সমন্বয়ের জন্য এর যৌক্তিকতা অনস্বীকার্য।

তিনি বলেন, প্রতি বছর সরকারেকে গ্যাসে প্রচুর ভর্তুকি দিতে হয়। এখন গ্যাসের দাম সমন্বয় করা হলো। এরপরও অনেক টাকা সরকারকে ভর্তুকি দিয়ে যেতে হবে।

তিনি বলেন, এটা মেনে নেয়ার জন্য আমি সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। ১৪ দলের যারা গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিরোধিতা করছেন আমি তাদের বৃদ্ধির পেছনে যৌক্তিক বিষয়গুলো অনুধাবন করার জন্য অনুরোধ করছি।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close